রেকর্ডময় রাত, হ্যাটট্রিক করে দলকে জিতালেন রোনালদো


ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর হ্যাটট্রিকে টটেনহ্যাম হটস্পার্সকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।টটেনহ্যামের হয়ে একটি গোল করেন হ্যারি কেইন ও অপরটি আত্মঘাতী গোল।

টটেনহ্যামের বিপক্ষে করা হ্যাটট্রিকের কল্যাণে নতুন রেকর্ড গড়েছেন তিনি। ফিফার মতে, সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা এখন রোনালদো। জোসেফ বিকানের করা ৮০৫ গোলের রেকর্ড ভেঙ্গে দিয়েছেন এই পর্তুগিজ তারকা।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে ম্যাচের শুরু থেকে টটেনহ্যামের উপর চাপ সৃষ্টি করার চেষ্টা করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। গোলের ক্ষুধা ছিলো স্পষ্ট। ম্যাচের ১২ তম মিনিটে আসে কাঙ্ক্ষিত গোল। ফ্রেডের আলতো করে ব্যাকহিল ফ্লিক খুঁজে পায় ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এমন জায়গায় বল পেয়েছেন যেখান থেকে রোনালদো শট নিবেন এমনটা হয়তো ভাবেন নি স্পার্স গোলকিপার হুগো লরিস। বক্সের অনেক দূর থেকে শট নিয়ে লরিসকে পরাস্ত করলেন রোনালদো। বল খুঁজে পেল তার ঠিকানা। ১-০ তে এগিয়ে গেল র‍্যাগনিক শিষ্যরা।

৩৫ তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান হ্যারি কেইন। যে গোলের সুবাদে ওয়েইন রুনির সর্বোচ্চ অ্যাওয়ে গোলের রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন এই ইংলিশ স্ট্রাইকার।

হ্যারি কেইনের সমতায় ফেরানোর আনন্দকে বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেন নি পাঁচবারের বিশ্বসেরা ফুটবলার। ৩৮তম মিনিটে জেডন সাঞ্চোর আলতো করে বাড়ানো বলকে জালে পাঠিয়ে দলকে আরো একবার এগিয়ে দেন তিনি। ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় রেড ডেভিলরা।

ম্যাচের ৭২ মিনিটে আরো একবার সমতায় ফিরে আন্তনিও কন্তের দল। ইউনাইটেডের ইংলিশ সেন্টার ব্যাক হ্যারি ম্যাগুইরে আত্মঘাতী গোল করে বসেন।

দ্বিতীয় বার সমতায় ফেরার পর হয়তো কন্তে ভেবেছিলেন অন্তত ১ পয়েণ্ট নিয়ে ঘরে ফেরা যাবে। কিন্তু ভাগ্যবিধাতা চেয়েছিলেন অন্যকিছু। চেয়েছিলেন রোনালদোর দ্বারা ইউনাইটেড জিতুক। ৮১ তম মিনিটে টেলেস যখন কর্ণার নিতে গেলেন তখনও কেউ জানে না, কোন দল জিতবে। টেলেসের হাওয়ায় ভাসানো বল ভারানে লাফ না দিয়ে ছেড়ে দিলেন। বল এসে পড়লো রোনালদোর মাথায়।প্লেসমেন্ট ঠিক করে সজোরে হেড করলেন। হাত দিয়ে চেষ্টা করেও বল আটকাতে পারলেন না লরিস। আরো একবার সতীর্থদের নিয়ে সেলিব্রেশনে মেতে উঠলেন রোনালদো। জয় নিয়ে মাঠ ছাড়লো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।


 আরো একটা রেকর্ড যুক্ত হয়েছে রোনালদোর নামের পাশে।  প্রথম গোলের পর অ্যান্ড্রু কোলকে পিছনে ফেলে প্রিমিয়ার লীগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতার লিস্টে ৫ উঠে এসেছিলেন তিনি। হ্যাটট্রিকের পর তার অবস্থান এখন চারে। পিছনে ফেলেছেন ইউনাইটেডের সাবেক ডাচ স্ট্রাইকার রুড ভ্যান নেস্টেলরয়কে। প্রিমিয়ার লীগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ক্রিশ্চিয়ানোর গোলসংখ্যা এখন ৯৬। তার উপরে থাকা পল স্কোলসের গোলসংখ্যা ১০৭,রায়ান গিগস ১০৯ ও ওয়েইন রুনির গোলসংখ্যা ১৮৩।

এ জয়ে পয়েন্ট  টেবিলের ৪ এ জায়গা পেয়েছে ইউনাইটেড।টটেনহ্যাম নেমে গেছে ৭ নম্বরে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ