সাকিব না চাইলে তাকে সরানো অসম্ভব


দ. আফ্রিকা সফর থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করার একদিন পর জাতীয় ক্রিকেট দলের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে তিন সংস্করণেই সাকিব আল হাসানকে রাখা হয়েছে।

তবে সাকিব আদৌ টেস্ট খেলবেন কিনা তা নিয়ে হয়তো তিনি নিজেই জানেন না। আফগানিস্তান সিরিজ শেষে দুবাই যাওয়ার পথে তিনি যেমন আভাস দিয়েছেন তাতে তাকে সাদা জার্সিতে দেখা নাও যেতে পারে অদূর ভবিষ্যতে। খেলতে চান না এবারের টি-২০ বিশ্বকাপের আগে পর্যন্ত। আপাতত নিজের শারীরিক ও মানসিক অবস্থার কথা চিন্তা করে খেলতে চান সাদা বলের শর্টার ফরম্যাটে।

দ. আফ্রিকা সফর থেকে বিশ্রাম পেয়েছেন সাকিব আল হাসান। ছবিঃ সংগ্রহীত

সাকিব আল হাসানকে তিন ফরম্যাটে রাখার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন," সাকিব আল হাসান ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্রাম দিয়েছেন। তিনি এরপরে খেলবেন। তিনি তো অবসরের ঘোষনা দেন নি। তাই তাকে তিন ফরম্যাটে রাখা হয়েছে।"

অপর নির্বাচক সাবেক স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক বলেন," সাকিব এমন একজন খেলোয়াড় সে নিজে থেকে না চাইলে তাকে বাদ দেওয়া অসম্ভব। সে দেশের সবচেয়ে বড় পারফর্মার। এমন পারফর্মারকে বাদ দেওয়ার কথা চিন্তা করা যায় না।"

আপাতত টি-২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত টেস্ট খেলতে চান না সাকিব। ছবিঃ ফেসবুক



দঃ আফ্রিকা সিরিজ থেকে বিশ্রাম চেয়েছিলেন, এ নিয়ে কয়েকদিন গণমাধ্যমের হটটপিক ছিলেন দেশসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বোর্ড সভাপতি, নির্বাচক,পরিচালক এর বক্তব্য ইস্যুটাকে ঝালিয়ে দিয়েছিলো কয়েকগুন।পরে বৈঠক করে মঞ্জুর করা হয়েছিলো সাকিবের বিশ্রামের আবেদনকে।

উল্লেখ্য যে, সাকিব আল হাসানকে ছাড়াই আজ সাউথ আফ্রিকার উদ্দেশ্যে উড়াল দিচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তিন ধাপে দঃ আফ্রিকা যাবে টাইগাররা। ১৮ ই মার্চ সেঞ্চুরিয়নে শুরু হবে প্রথম ওয়ানডে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ