দুই ব্রাজিলিয়ানের গোলে বিশ্বকাপ স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখলো পর্তুগাল

তুরস্ককে ৩-১ গোলে হারিয়েছে পর্তুগাল। ছবিঃ টুইটার

বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব প্লে-অফের সেমিফাইনালে তুরস্ককে ৩-১ গোলে হারিয়েছে পর্তুগাল। অপরদিকে উত্তর মেসিডোনিয়ার কাছে ১-০ গোলে হেরে বিদায় নিয়েছে ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালি।

পর্তুগালের হয়ে গোল করেছেন ব্রাজিলে জন্ম নেওয়া দুই পর্তুগিজ ফুটবলার ওটাভিয়ো ও ম্যাথিউস নুনেজ। অপর গোলটি লিভারপুল ফরোয়ার্ড দিয়াগো জোটার। তুরস্কের হয়ে গোল করেন বুরাক ইলমাজ।

নিয়মিত একাদশের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় ছাড়াই মাঠে নেমেছিলো পর্তুগাল। ম্যানচেস্টার সিটির ডিফেন্ডার রুবেন দিয়াজ ও জোয়াও ক্যান্সেলো, অভিজ্ঞ সেন্টার ব্যাক পেপে,  মিডফিল্ডার রেনাটো সানচেঞ্জের অনুপস্থিতিতে দলের প্রথম একাদশে সুযোগ পান জোসে ফন্টে, দানিলো পেরেইরা ও ওটাভিয়ো।

১ গোল ও ১ অ্যাসিস্ট করেছেন ওটাভিয়ো। ছবিঃ টুইটার

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমনের পসরা সাজিয়ে বসে পর্তুগাল। আক্রমনের ফল পেতে ১৫ মিনিট লাগে সান্তোসের শিষ্যদের। রাফায়েল গুরেইরোর শটে গোলবারে লেগে ফিরে আসে, ফাঁকায় বল পেয়ে জালে জড়াতে ভুলেন নি পোর্তোর মিডফিল্ডার ওটাভিয়ো। সুযোগ পেয়েছিল তুরস্কও, কিন্তু প্রথম অর্ধে কাজে লাগাতে পারে নি তেমন সুযোগ। উল্টো ওটাভিয়োর ক্রস থেকে পাওয়া বল হেড করে জালে জড়ান দিয়াগো জোটা। ২ গোলের ব্যবধান নিয়ে বিরতীতে যায় পর্তুগিজরা।

২য় অর্ধে আক্রমনের ধার বাড়াতে থাকে দুদলই। প্রতি আক্রমনে গোল পেয়ে যায় তুর্কিরা। আন্ডারের বাড়ানো বল থেকে গোল করেন বুরাক ইলমাজ। ৭১ মিনিটে জোটা থেকে উঠিয়ে ফেলিক্সকে নামান পর্তুগাল কোচ। পরে ব্রুনো ফার্নান্দেজকে উঠিয়ে ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার উইলিয়াম কার্ভাহালোকে নামান সান্তোস। কিন্তু জোসে ফন্টের ভুলে পেনাল্টি পেয়ে যায় তুরস্ক। পেনাল্টি মিস করে বসেন আগের গোল করা ইলমাজ। যোগ করার সময় গোল করে জয় নিশ্চিত করেন ম্যাথিউস নুনেজ।

৩০ শে মার্চ বিশ্বকাপের টিকেটের জন্য উত্তর মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে রোনালদোর পর্তুগাল। বিজয়ী দল পাবে সে টিকেট।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ