বাবর-রিজওয়ান বীরত্বে ড্র হলো করাচি টেস্ট

আউট হয়ে যাওয়ার পর বাবরকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন রিজওয়ান। ছবিঃ টুইটার

করাচিতে বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ানের শতকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট ড্র করেছে পাকিস্তান। ১ম টেস্টও ড্র হয়েছিলো তাই সিরিজ নির্ধারণ হবে তৃতীয় টেস্টে।

বাবর আজম ৪ রানের জন্য ছুঁতে পারেন নি ক্যারিয়ারের প্রথম দ্বি-শতক, থেমেছেন ১৯৬ রানে। খেলা শেষ হওয়ার ১ ওভার আগে সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছিলেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। এটি তার টেস্ট ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় শতক। ৪ রানের আক্ষেপ আব্দুল্লাহ শফিকেরও, ৯৬ রানে আউট হয়েছেন পাকিস্তানী ওপেনিং ব্যাটার। 

ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় ইনিংস খেলার পথে বাবর আজম।  ছবিঃ টুইটার

দুদার্ন্ত ইনিংসের জন্য বাবরকে অভিবাদন জানিয়েছেন অজিরা। ছবিঃইএসপিএন

১ম ইংনিসে ব্যাট করে ৫৫৬ রান তুলে ইংনিস ঘোষণা করে অস্ট্রেলিয়া। সেঞ্চুরি হাকান পাকিস্তানে জন্ম নেওয়া অজি ওপেনার উসমান খাজা। ১৬০ রান করেন তিনি। উইকেট কিপার ব্যাটার এলেক্স ক্যারি করেন ৯৩ রান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২য় ইংনিসে ১৪৮ রানে গুটিয়ে যায় পাকিস্তান ক্রিকেট দল। মিচেল স্টার্ক নেন ৩ উইকেট।

৩য় ইংনিসে নামে মাত্র ব্যাট করতে নামে অজিরা। মাত্র ৯৭ রানে ইংনিস ঘোষণা করে তারা। খাজা ও লাবুশেন উভয়েই অপরাজিত থাকেন ৪৪ রানে। ফলে পাকিস্তানের জন্য টার্গেট হয়ে দাড়ায় ৫০৫ রানের।
লক্ষ্যমাত্রা সামনে রেখে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২ রানে প্রথম উইকেট হারায় পাকিরা। ইমামুল হক ফিরেন নাথান লায়নের বলে। ২১ রানের মাথায় আউট হয়ে যান সাবেক অধিনায়ক আজহার আলীও। সেখান থেকে আব্দুল্লাহ শফিককে সাথে নিয়ে ২২৮ রানের জুটি গড়েন অধিনায়ক বাবর আজম। ব্যক্তিগত ৯৬ রানে প্যাট কামিন্সের বলে স্টিভ স্মিথের কাছে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন শফিক। ফাওয়াদ আলম টিকতে পারেন নি বেশিক্ষণ। ব্যক্তিগত ৯ রানে আউট হন তিনি। মোহাম্মদ রিজওয়ানকে নিয়ে অসম্ভবকে সম্ভব করতে লড়াই চালিয়ে যান বাবর। ১১৫ রানের জুটি গড়েন তারা। বাবর ১৯৬ রানে আউট হওয়ার পরের বলে আউট হন ফাহিম আশরাফ। চার ওভারের বিরতীতে আউট হন সাজিদ খান। তবে স্তম্ভ হয়ে দাড়িয়েছিলেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। নোমান আলীকে নিয়ে নিজের শতক তুলে নেওয়ার পাশাপাশি নিরাপদে দলকে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌছিয়ে দিয়েছেন।

শতক পেয়েছেন মোহাম্মদ রিজওয়ানও। ছবিঃ সংগ্রহীত

বাবর আজমের ইনিংসটি পাকিস্তানের ক্রিকেট ইতিহাসে ৪র্থ ইনিংসে সবচেয়ে লম্বা ইনিংস। অধিনায়ক হিসেবে ৪র্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের রেকর্ডটাও এখন বাবরের দখলে।  রিজওয়ান পাকিস্তানের ক্রিকেট ইতিহাসের ২য় উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান যিনি টেস্টের ৪র্থ সেঞ্চুরি মেরেছেন। ব্যক্তিগত ১৯৬ রান করায় ম্যাচসেরা হয়েছেন বাবর আজম।

টেস্ট সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ২১ শে মার্চ থেকে লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ